কলকাতা ভিশন ডিজিটাল ডেস্ক: খাতা খুলতেই ঝোড়ো ব্যাটিং শুরু করে দিল ক্রস-প্ল্যাটফর্ম এনক্রিপ্টেড মেসেজিং সার্ভিস Signal। ভারত-সহ বিশ্বের অন্যান্য দেশেও WhatsApp-কে ছাপিয়ে App Store-এর ফ্রি অ্যাপস ক্যাটেগরিতে চলে এল Signal।

শনিবারই এই ইনস্ট্যান্ট মেসেজিং প্ল্যাটফর্মের ট্যুইটার হ্যান্ডেল থেকে একটি স্ক্রিনশট শেয়ার করা হয়। সেই ছবিতেই পরিষ্কার হয়ে গিয়েছে, WhatsApp-কে ছাপিয়ে ভারতে প্রথম স্থানে চলে এসেছে Signal। আর সেই ট্যুইটেই সিগন্যালের তরফে লেখা হচ্ছে, ‘দেখুন, আপনারা কী করেছেন!’ ভারতের পাশাপাশিই জার্মানি, ফ্রান্স, অস্ট্রিয়া, ফিনল্যান্ড, হংকং এবং স্যুইৎজারল্যান্ডেও WhatsApp-কে ছাপিয়ে মোস্ট ডাউনলোডেড অ্যাপ হিসেবে উঠে এসেছে Signal। অন্য দিকে আবার হাঙ্গেরি এবং জার্মানিতে Google Play Store-এও সেরা ফ্রি অ্যাপ হয়েছে সিগন্যাল।

সংবাদমাধ্যম রয়টার্সের একটি রিপোর্টে সেন্সর টাওয়ার-এর হিসেব উল্লেখ করে বলা হয়েছে, গত দুই দিনে Android এবং iOS দুই জায়গা থেকেই কমপক্ষে 100,000 মানুষ ডাউনলোড করেছেন Signal অ্য়াপ। 2021 সালের প্রথম সপ্তাহেই WhatsApp-এর ইনস্টল প্রায় 11% কমিয়ে দিয়েছে সিগন্যাল। যদিও এতসবের পরেও WhatsApp কিন্তু সারা বিশ্বজুড়েই সেই 10.5 মিলিয়ন ডাউনলোডের পরিসংখ্যান ধরে রেখেছে।

কিছু দিন আগেই WhatsApp প্রাইভেসি পলিসি ঢেলে সাজানোর কথা ঘোষণা করতেই Signal-এর বাড়বাড়ন্ত বাড়ে। তাতে আবার ঘৃতাহুতি দেন টেলসা সিইও এলন মাস্ক। ট্যুইট করে বিশ্বব্যাপী গ্রাহকদের সরাসরি WhatsApp-এর বিকল্প অ্যাপ Signal ব্যবহার করার পরামর্শ দিয়েছিলেন তিনি। আর মাস্কের একটা ট্যুইটেই বাজিমাত করে Signal। ঠিক যেন খেল খতম, পয়সা হজম হয়ে যায় জাস্ট কয়েক মুহূর্তের ব্যবধানে। গ্রাহক-ঝড়ে কাবু Signal-এ একটা সময়ে এমনই বিপুল পরিমাণে নতুন গ্রাহকের রিকোয়েস্ট আসতে থাকে যে, কোম্পানি ভেরিফিকেশন লিঙ্ক পেতে নাজেহাল অবস্থা হয় গ্রাহককূলের। যদিও দ্রুত সেই সমস্যার সমাধান করে কামব্যাক করে Signal।

WhatsApp প্ল্যাটফর্ম তার শর্ত ও গোপনীয়তার নীতি বদল করার ফলে আপনার মোবাইল নম্বর, ফোনের তথ্য, আইপি অ্যাড্রেস, গ্রাহকের বার্তা বিনিময়ের প্রকৃতি, লেনদেনের তথ্য, লোকেশন হিস্ট্রি এবং আরও একাধিক তথ্য তাঁরা তুলে দিতে পারে Facebook-এর কাছে। শুধু Facebook-ই নয়, WhatsApp কর্তৃপক্ষ আগামী দিনে Facebook-এর মালিকানাধীন অন্য সংস্থাগুলির সঙ্গেও গ্রাহকতথ্য ভাগ করে নেবে বলে জানিয়েছেন তাঁরা।

তবে শুধুই Signal অ্যাপ নয়! WhatsApp-এর সর্বনাশে পৌষমাস শুরু হয়ে গিয়েছে আর এক ইনস্ট্যান্ট মেসেজিং প্ল্যাটফর্ম Telegram-এরও।

By Subrata

সুব্রত .

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected By Kolkatavision !!