কলকাতা ভিশন ডেস্ক:

হাথরাসে যাওয়ার পথে আগেই গাড়ি আটকানো হয়েছিল। তারপর হেঁটে হাথরাসে যাওয়ার সময় রাহুল গান্ধী ও প্রিয়াঙ্কা গান্ধী বঢরাকে গ্রেফতার করল উত্তরপ্রদেশ পুলিশ। এমনটাই দাবি করেছে কংগ্রেস। সংবাদ সংস্থা এএনআই জানিয়েছে, ভারতীয় দণ্ডবিধির ১৮৮ ধারায় রাহুলকে গ্রেফতার করা হয়েছে। তাঁদের পুলিশের গাড়িতে তুলে নিয়ে যাওয়ারও ছবি ধরা পড়েছে।

হাথরাসে মৃত তরুণীর পরিবারের সঙ্গে দেখার জন্য বৃহস্পতিবার বেলা ১২ টা নাগাদ দিল্লি থেকে গাড়ি করে রওনা দেন রাহুল ও প্রিয়াঙ্কা। তার আগেই হাথরাসে ১৪৪ ধারা জারি করে দেওয়া হয়। তাঁদের যাওয়ার পথে জড়ো হন কংগ্রেস সমর্থকরা। কিন্তু গ্রেটার নয়ডার পরী চকের কাছে রাহুল-প্রিয়াঙ্কার কনভয়কে আটকে দেয় যোগী আদিত্যনাথের পুলিশ। তারপর তাঁরা হেঁটে ১৪২ কিলোমিটার দূরে হাথরাসের উদ্দেশে রওনা দেন। কড়া রোদ উপেক্ষা করেই তাঁদের সঙ্গী হন অসংখ্য কংগ্রেস নেতা-কর্মী।

পরে যমুনা এক্সপ্রেসওয়ের কাছে আবারও রাহুলদের আটকায় পুলিশ। সেই সময় পুলিশের সঙ্গে কিছুটা বচসায় জড়িয়ে পড়েন রাহুল। এক পুলিশকর্তা জানান, রাহুলকে আর যেতে দেওয়া হবে না। তাঁকে গ্রেফতার করা হবে। তাতে রাহুল বলেন, ‘এখান থেকে আমি একা যেতে চাই। আমি শান্তিপূর্ণভাবে দাঁড়িয়ে আছি। ১৪৪ ধারায় জমায়েতের বিষয়ে বলা আছে। আমি জমায়েত করতে চাই না। আমি এখান থেকে একাই হেঁটে হাথরাসে যেতে চাই। কোন ভিত্তিতে আপনি আমায় গ্রেফতার করছেন, এটা আমায় বলে দিন।’

যোগীর পুলিশ দাবি করে, নির্দেশ লঙ্ঘন করার জন্য ভারতীয় দণ্ডবিধির ১৮৮ ধারায় গ্রেফতার করা হচ্ছে। পরে রাহুল সুর চড়িয়ে প্রশ্ন করেন, তিনি কোন নিয়ম ভঙ্গ করেছেন। তার জবাবে ওই পুলিশকর্তা জানান, ১৪৪ ধারা ও মহামারী আইন ভঙ্গ করার জন্য গ্রেফতার করা হচ্ছে।

এরইমধ্যে রাহুলের যাত্রাপথের কয়েকটি ছবি ও ভিডিয়ো ছড়িয়ে পড়ে। তাতে দেখা যায়, রাহুল-সহ কংগ্রেস সমর্থকদের সঙ্গে পুলিশের ধাক্কাধাক্কি হচ্ছে। সেই সময় পড়ে যান রাহুল। কংগ্রেস সাংসদের অভিযোগ, তাঁকে ধাক্কা ফেলে দিয়েছে পুলিশ। শুধু তাই নয়, তাঁকে লাঠি দিয়ে মারাও হয়েছে। যদিও সেই অভিযোগ অস্বীকার করেছে যোগীর পুলিশ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected By Kolkatavision !!