২৩ জানুয়ারি (January) নেতাজি সুভাষচন্দ্র বসুর (Subhash Chandta Bose) জন্মবার্ষিকী পালন করা হবে পরাক্রম দিবস হিসাবে। আজ, মঙ্গলবার (Tuesday) এক বিজ্ঞপ্তিতে এমনটাই জানাল কেন্দ্রীয় সরকার (Central Govt)। ইতিমধ্যে নেতাজির ১২৫তম জন্মজয়ন্তী ব্যাপক আকারে পালন করতে চলেছে কেন্দ্র। ইতিমধ্যে একটি কমিটি গঠন করা হয়েছে। সেই কমিটির সদস্য সংখ্যা ৮৫ জনের। নেতাজি জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে দেশ জুড়ে বিভিন্ন কর্মকাণ্ড করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে কেন্দ্রের তরফে।

কেন্দ্রের ওই কমিটির চেয়ারম্যান করা হয়েছে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে। এই কমিটিতে রয়েছেন রাজ্যের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী বুদ্ধদেব ভট্টাচার্য, রাজ্যের বর্তমান মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়, কংগ্রেস নেতা অধীর চৌধুরী, বিজেপি নেতা শুভেন্দু অধিকারী সহ অন্যান্যরা। এই কমিটিতে রাজনীতি থেকে শিক্ষা, ক্রীড়া থেকে সংস্কৃতি- সব অংশের মানুষ রয়েছেন। ৮৫ সদস্যের কমিটি তৈরি করেছে কেন্দ্রীয় সংস্কৃতি মন্ত্রক।

কমিটিতে রয়েছেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ ,প্রতিরক্ষামন্ত্রী রাজনাথ সিং, অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারমন। দেশের প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী এইচ ডি দেবগৌড়া, মনমোহন সিংও রয়েছেন সেখানে। রয়েছেন লোকসভার স্পিকার ওম বিড়লা, প্রাক্তন স্পিকার মনোহর যোশি, সুমিত্রা মহাজন, শিবরাজ পাটিল এবং মীরা কুমার। রয়েছেন নেতাজি পরিবারের সদস্য চন্দ্র বসু, রেণুকা মালাকার।

ওই কমিটিতে রয়েছেন ক্রীড়াবিদ সুব্রত ভট্টাচার্য, প্রাক্তন ক্রিকেট অধিনায়ক সৌরভ গঙ্গোপাধ্য়ায়, সঙ্গীত পরিচালক এ আর রহমান, বিশ্বভারতী বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য বিদ্যুৎ চক্রবর্তী, অভিনেতা মিঠুন চক্রবর্তী, অভিনেত্রী কাজল প্রমুখ।

পিআইবি এক বিবৃতিতে জানিয়েছিল, কেন্দ্রীয় সরকার নেতাজি সুভাষচন্দ্র বসুর ১২৫তম জন্মবার্ষিকী উদযাপনের জন্য একটি উচ্চস্তরের কমিটি গঠনের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। ২০২১ সালের ২৩ জানুয়ারি থেকে শুরু হতে চলা ১ বছর মেয়াদী উৎসব উদযাপনের বিভিন্ন কর্মকাণ্ড পরিচালনার বিষয়ে সিদ্ধান্ত নিতেই কমিটি গঠনের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। ইতিমধ্যে এই বিশেষ দিনটিকে দেশনায়ক দিবস হিসাবে ঘোষণা করেছে রাজ্য সরকার। রাজ্য সরকারের তরফেও বিশেষ একটি কমিটি গঠন করা হয়েছে।

By Subrata

সুব্রত .

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected By Kolkatavision !!